অনলাইন ভিত্তিক ট্যুরিজম গ্রুপ বেকারত্ব দূরীকরণে বড় ভূমিকা রাখছে

0
510

একজন পর্যটন ব্যবসা উদ্যোক্তা প্রত্যক্ষ ও প্ররোক্ষ মিলিয়ে অন্তত ৪৪ জন মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করছে। বর্তমান তরুণ উদ্যোক্তারা তথ্যপ্রযুক্তিতে দক্ষ হওয়ায় বাংলাদেশের পর্যটন বিশ্ব দরবারে পরিচিতও পাচ্ছে। তবে অনলাইন বেজড ট্যুরিজম (Based turism)গগ্রুপগুলো ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকায় অপেশাদারিত্বের কিছু ঘটনাও ঘটছে। তাই উদ্ভুত সমস্যা সমাধানে সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করার পাশাপাশি নিজেদের দক্ষতা উন্নয়ন করা প্রয়োজন।

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর মহাখালীতে পর্যটন কর্পোরেশনের অবকাশ হোটেল সেমিনার কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন পর্যটন সম্পৃক্তরা। অনলাইন বেজড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ট্যুরিজম অ্যাক্সপ্লোরারস অ্যাসোসিয়েশন। সহযোগিতায় ছিল ন্যাশনাল হোটেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ট্রেনিং ইনস্টিটিউট। সভায় দেশের অনলাই ভিত্তিক অর্ধশতাধিক ট্যুরিজম গ্রুপের এডমিন অংশ নেন।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ন্যাশনাল হোটেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ আখলাকুর রহমান বলেন, দেশের পর্যটনকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে হলে আগে দেশি পর্যটকদের ঘুরতে হবে। নিজেদের পর্যটনের সৌন্দর্য তুলে ধরতে হবে। সফল হতে হলে অনেক বেশি জানতে হবে এবং প্রফেশনাল হতে হবে।

পর্যটন এলাকার সংস্কৃতি ও অবকাঠামোগত পরিবর্তনের সমালোচনা করে তিনি বলেন, আমরা আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ। আমাদের সংস্কৃতিও হতে পারে ট্যুরিজমের অংশ। কৃষক কিভাবে ধান কাটে, গহীন গ্রামের মানুষের জীবনযাত্রা কেমন এগুলো দিয়েও বিদেশীদের আকর্ষণ করা যায়। দেখার বিষয় হলো আমরা কে কিভাবে তুলে ধরছি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ারের চেয়ারম্যান ও পর্যটন বিচিত্রা সম্পাদক মহিউদ্দিন হেলাল বলেন, আমাদের পর্যটন অনেক সম্ভাবনার কিন্তু অনেকের অপেশাদারি আচরণের কারণে আমরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছি। দেশের পর্যটনকে এ ক্ষতি থেকে বাঁচাতে হলে ট্যুর অপারেটরদের দক্ষতার উন্নয়ন দরকার।

সমুদ্র বিষয়ক পরিবেশবাদী সংগঠন সেভ আওয়ার সি’র মহাসচিব গাজী আনোয়ারুল হক বলেন, শুধুমাত্র সমুদ্রকে ঘিরে আমাদের দেশের রয়েছে অপার সম্ভাবনা। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আমরা ভ্রমণ করতে গেলেও পর্যটকের আচরণ করছি না। যত্রতত্র আবর্জনা ফেলে পর্যটন কেন্দ্র দূষণ করছি। আমরা আশা করবো পর্যটন ব্যবসায়ীরা নিজেদের ব্যবসা ও দেশের স্বার্থে পরিবেশ রক্ষা করেই পর্যটন করবেন।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম অ্যাক্সপ্লোরারস অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম সাগরের সভাপতিত্বে ও ডিরেক্টর অপারেশান কিশোর রায়হানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিটিইএ’র ভাইস চেয়ারম্যান মাসুদুল হাসান জায়েদী, আরো বক্তব্য রাখেন, দ্য মেসেজ বাংলাদেশের প্রকাশক ও মাই ট্যুরিজম অনুষ্ঠানের সঞ্চালক কাজী রহিম শাহরিয়ার, পর্বতারোহন প্রশিক্ষক সামছুল আলম বাবু, মেরিন জার্নালিস্টস নেটওয়ার্কের সভাপতি মাহমুদ সোহেল প্রমুখ।